ঠাকুরগাঁও পীরগঞ্জে ৪৫ বছর পর প্রশাসনের সহায়তা মন্দির ও শ্বশান ঘাটের জমি উদ্ধার।।

মনসুর আহাম্মেদ ঠকুরগাঁও জেলা প্রতিনিধি
ঠাকুরগাওয়ের পীরগঞ্জ উপজেলার কিসমত সৈয়দপুর দূর্গা মন্দির ও পুকুর সহ শ্বশান ঘাটের দুই একর জমি প্রায় ৪৫ বছর পর প্রভাবশালীদের কবল থেকে উদ্ধার করা হয়েছে। শনিবার দুপুরে উপজেলা প্রশাসনের সহায়তা হিন্দু সম্প্রদায়ের লোকজন এ জমি উদ্ধার করেন।

মন্দির ও শ্বশান ঘাটরে সভাপতি নারায়ন চন্দ্র রায় জানান, তাদের পূর্ব পুরুষরা ঐ মন্দিরে পুজা আর্চনা করা সহ শ্বশান ঘাট ব্যবহার করে আসছিল। ঐ মন্দির ও শ্বশান ঘাটের নামে দুই এক এক শতাংশ জমির রেকর্ড রয়েছে। ১৯৭৫ সালের পর থেকে একটি প্রভাবশালী মহল মন্দির প্রাঙ্গন ছাড়া পুকুর ও শ্বশান ঘাট তাদের দখলে নিয়ে নেয়। বেহাত হওয়া ঐ সম্পত্তি উদ্ধারে প্রশাসন সহ বিভিন্ন দপ্তরে আবেদন করেন ঐ এলাকার হিন্দু সম্প্রদায়ের লোক জন। দীর্ঘ শুনানির পর জবরদখলকারীদের বৈধ কোন কাগজ পত্র না থাকায় উপজেলা প্রশাসন মন্দির ও শ্বশান ঘাটের বেহাত হওয়া ঐ জমি উদ্ধারে এগিয়ে আসেন। প্রশাসনের সহায়তায় ঐ এলাকার দুই শতাধিক নারী পুরুষ বেহাত হওয়া সম্পত্তির চারদিকে বেড়া দিয়ে লাল ঝান্ডা সেটে দেন।

এ সময় উপজেলা চেয়ারম্যান আলহাজ্ব আখতারুল ইসলাম, উপজেলা নির্বাহী অফিসার রেজাউল করিম, সহকারি কমিশনার(ভুমি) তরিকুল ইসলাম, ইউপি সদস্য মখলেসুর রহমান সহ স্থানীয় গন্যমান্য ব্যক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন।

সহকারি কমিশনার(ভুমি) তরিকুল ইসলাম জানান, ঐ সম্পত্তি দেবত্তোর ও শ্বশান ঘাটের নামে রেকর্ড রয়েছে। হিন্দু সম্প্রদায়ের লোকজন সম্পত্তি উদ্ধারের জন্য আবেদন করেন। দখলদারদের নোটিশ করা হয়। তারা কোন বৈধ কাগজ পত্র দেখাতে পারেনি।এলাকার হিন্দু সম্প্রদায়ের লোকজন সম্পত্তি উদ্ধারে এগিয়ে আসলে দখলদার সাথে কথা বলে প্রশাসনের পক্ষ থেকে সহায়তা করা হয়েছে। শান্তিপূর্ন ভাবে সম্পত্তি উদ্ধার কার্যক্রম সম্পন্ন হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *