“লড়াই করেই বাঁচতে হবে, কর্মহীন নয় কর্মময় জীবন বেঁচে থাকার শক্তি-সাবেক চেয়ারম্যান আবু হায়াত নুরনবী

“লড়াই করেই বাঁচতে হবে, কর্মহীন নয় কর্মময় জীবন বেঁচে থাকার শক্তি”

মোঃ জানে আলম শেখঃ প্রতিটি মহামারী কে পরাজিত করে মানব সভ্যতার বিজয় হয়েছে বার বার।

এবারো করোনা কে পরাজিত করে মানব সভ্যতার বিজয় হবে, সেই আশায় বুক বেধে আছে সারা বিশ্ব।

করোনা ভাইরাসের ভ্যাক্সিন ও ওষুধ আবিস্কারের আপ্রান চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে চিকিৎসা বিজ্ঞানীরা। এর মধ্যে কিছুটা আশার আলো দেখিয়েছে তারা। এর সুফল সারা পৃথিবীর মানুষের কাছে পৌছাতে একটা লম্বা সময় লেগে যাবে এটাই স্বাভাবিক, আমাদের সেটা মেনে নিতেই হবে।

তাই বলে কি এই লম্বা সময় পৃথিবী স্থবির হয়ে থাকবে? তাহলে কি লকডাউন এক থেকে দুই বছর থেকে যাবে? কখনোই সেটা হতে পারে না। করোনার সাথে লড়াই করা শিখার জন্যই এই লকডাউন। এই সময় টুকুতে নিজেকে প্রস্তুত করতে হবে লড়াইয়ের জন্য। এ জন্য করোনা প্রতিরোধ এর স্বাস্থ্যবিধি গুলি ১০০ ভাগ অভ্যাসে পরিনত করতে হবে। যেমন সব সময় মাস্ক পরা, ঘন ঘন হাত সাবান পানিতে ধোয়া ও প্রয়োজনে স্যানিটাইজার ব্যবহার করা, কারন আমরা জানি নাক,মুখ ও চোখ দিয়ে এই ভাইরাস শরীরে প্রবেশ করে। তাই এ গুলি লড়াইয়ের জন্য সুরক্ষিত রাখা। সেই সাথে সামাজিক ও শারীরিক দূরত্ব শত ভাগ মেনে চলা। সেই সাথে রোগপ্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়াতে খাদ্যাভ্যাস পরিবর্তন করা। এগুলি সহ বিশ্বস্বাস্থ্য সংস্থার সকল নির্দেশ মেনে ধীরে ধীরে স্বাভাবিক কর্মময় জীবনে ফিরে যেতে হবে আমাদের সবাইকে। সেই সাথে মনে গেঁথে নিতে হবে আমার সামনে করোনা নামক শত্রুটি দাড়িঁয়ে আছে। তাকে এড়িয়ে চলে এবং পরাজিত করে আমাদের এগিয়ে যেতে হবে।

করোনা মুক্ত পৃথিবী অপেক্ষা করছে আমাদের জন্য। সে অবধি এ গুলি মেনে চলা বাধ্যতামূলক অভ্যাসে পরিনত করতে হবে আমাদের।  সবাই ভাল থাকুন, সকলের সাবধানতা ও সচেতনতাই পারে করোনা ভাইরাস সংক্রামন রুখে দিতে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

%d bloggers like this: